ব্রেকিং নিউজঃ

কলমাকান্দায় যমুনা এনজিওর কর্মকর্তারা গ্রাহকের টাকা নিয়ে উধাও

আপডেটঃ ১১:০৫ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ২২, ২০২২

 

কলমাকান্দা (নেত্রকোনা) সংবাদদাতা: কলমাকান্দায় যমুনা ফাউন্ডেশন নামে একটি বেসরকারি সংস্থার (এনজিও) কর্মকর্তারা গ্রাহকদের প্রায় ১০ লক্ষাদিক টাকা নিয়ে উধাও হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে করে বিপাকে পড়েছেন ওই এনজিওতে সঞ্চয় রাখা শতাধিক গ্রাহক।স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, যমুনা ফাউন্ডেশন নামের এনজিও উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের ভবানীপুর এলাকার ঠিকানা দিয়ে কার্যক্রম শুরু করে। সঞ্চয় আমানতকারীদের কে ঋণ দেওয়ার কথা বলে ভবানীপুর গ্রামের লিটন মিয়ার নির্মাণাধীন ভবনের একটি কক্ষ ভাড়া নেওয়ার কথা বলে একটি কক্ষে সঞ্চয়কারীদের বিশ^াস যোগ্যতা অর্জণের জন্য কিছু কাগজপত্র রাখেন কর্মকর্তা। এদিকে পশ্চিম নাজিরপুর, ভবানীপুর, হরিপুর, উত্তর নয়াগাঁও, আতকাপাড়া, রহিমপুর, রামপুর, নিলাখালীসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে ঋণ দেওয়ার কথা বলে সঞ্চয়ের টাকা হাতিয়ে নেয়। ১৯ ডিসেম্বর সকালে গ্রাহকেরা অফিসে ঋণ নিতে আসলে এনজিও কর্মকর্তাদেরকে পাওয়া যায় নি। উপজেলার উত্তর নয়াগাঁও গ্রামের কৃষক আনোয়ার হোসেন বলেন, ওই সংস্থা থেকে দুই লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার কথা ছিল। এমনকি সঞ্চয় হিসেবে ৩৩ হাজার টাকা জমা দিয়েছি। একইভাবে এনজিও’র গ্রাহক মো. আলতু মিয়া জানান, আমি ১০ হাজার টাকা জমা দিয়েছি। সোমবার সকালে আমাকে ঋণ দেওয়ার কথা ছিল কিন্তু যোগাযোগের চেষ্টা করেও কর্মকর্তাদের কে না পেয়ে সংস্থার নামে ব্যবহৃত মুঠোফোনের নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। পরে অফিসে গিয়ে দেখি কেউই নাই। এ বিষয়ে এনজিও কার্যালয়ের ভবন মালিক লিটন মিয়া জানান, সোমবার দুপুরে ঘর ভাড়া নেওয়ার কথা ছিল। এ সুবাদে আমার একটি কক্ষে কিছু কাগজপত্র রেখে যায়। পরদিন বাসা চুক্তিপত্র করে এনজিওর কার্যক্রম উদ্বোধন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই গ্রাহকদের টাকা নিয়ে উধাও হয়ে গেছে।