ব্রেকিং নিউজঃ

পূর্বধলায় আদালতের রায়কে অমান্য করে দেদারছে চলছে মেসার্স সততা ব্রিকস ফিল্ড

আপডেটঃ ৯:২২ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ২২, ২০২৩

 

মোনায়েম খান ,নেত্রকোণা :  জেলার পূর্বধলা উপজেলায় মহামান্য আদালতের রায়কে তোয়াক্কা না করে নিজেদের ক্ষমতার অপব্যবহার করে মেসার্স সততা ব্রিকস ফিল্ড ইটভাটা চালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে ইলিয়াস গাজী গংদের বিরুদ্ধে। বিবাদী ইলিয়াস গাজীর বিরুদ্ধে আদালতে অন্তবর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞার আদেশ হয়, যাহা এখন পর্যন্ত বলবৎ রহিয়াছে। এমতাবস্থায় পরিবেশ অধিদপ্তর নেত্রকোনার দায়ের কৃত মোকাদ্দমা নং ১৪-২২, বিগত ৮-৯-২২ ইংরেজী তারিখ রায় প্রচারের দিন ইলিয়াস গাজী নিজের দোষ স্বীকার করে বিধায় বিজ্ঞ আদালত থাকে ১,৩০০০০, টাকা জরিমানা করেন এবং ইটখলাটি চালু না করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন । পাশা পাশি আরও নির্দেশ প্রদান করেন যে, ৮-৩-২০২৩ তারিখের মধ্যে ইটখলাটি অনত্র পরিবেশ সম্মত স্থানে স্থানান্তর করার জন্য। স্থানান্তর না করিলে পরবর্তী একমাস অর্থাৎ ৮-৪-২০২৩ ইং তারিখের মধ্যে বর্নিত এই ইটভাটা বিনষ্ট করার জন্য সহকারি পরিচালক পরিবেশ অধিদপ্তর নেত্রকোনাকে মহামান্য আদালত নির্দেশ প্রদান করেন। এই দিকে ইলিয়াস গাজীগংরা আদালতের আইনকে অমান্য করে সততা ব্রিক ফিল্ডটি দেদারছে চালিয়ে যাচ্ছে। মামলার বিবরণে জানা যায়, জেলার পূর্বধলা উপজেলার আগিয়া ইউনিয়নের হাটকান্দা নামক স্থানে মেসার্স সততা ব্রিকস ফিল্ডস এর প্রতিষ্ঠাতা স্বত্বাধিকারী মালিক আঃ মন্নান তার জীবনের সর্বস্ত্র ব্যয় করে এই ইটখলাটি প্রতিষ্ঠা করেন এবং পরিচালনা করিতে থাকাবস্থায় বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জনকে শেয়ার নিয়ে ব্যবসা করিতে থাকাবস্থায় বিগত ৮-৬-২০১৫ তারিখ এফিডেভিট মূল্যে মহর আলীকে শেয়ার নেন। মহর আলী শেয়ার নেওয়ার পর ইটখলায় কোন টাকা পয়সা ইনভেস্ট করার আগেই তিনি মারা যান। আঃ মন্নান লেখা পড়া না জানা লোক বিধায় মহর আলীর নিকট ইটখলা বিক্রির কথা উল্লেখ করিয়াছিলেন ফলে পরবর্তী সময় ইটখলার লেভার সর্দার ইলিয়াস গাজী মহর আলীর ওয়ারিশদের নিকট হইতে ইটখলাটি ভাড়া নেয় কিন্তু সেও এফিডেফিটে বিক্রির কথা উল্লেখ করে ফলে আঃ মন্নান এর সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয় ।এই নিয়ে স্থানীয় গণ্যমান্য লোকজনের সাথে আলোচনায় বসলে এই খলার মালিক হিসেবে আঃ মন্নান মালিক সাব্যস্থ হয়। এর মধ্যে আঃ মন্নানের আর্থিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় মেসার্স সততা ব্রিক ফিল্ডটি এলাকার মাতাব্বরগণকে নিয়ে লেভার সর্দার ইলিয়াস গাজীর নিকট ১৪,বছরের জন্য ভাড়া প্রদান করেন । বিগত ২০-০৯-১৬ ইং তারিখে এফিডেভিট এর মাধ্যমে ও জনসম্মুকে উল্লেখ থাকে যে আঃ মন্নানকে প্রতি মাসে ২০০০০, টাকা করে দিবে ও ঋণ পরিশোধের জন্য ৩৫০০০০০, লক্ষ টাকা দিয়ে দিবে। এই শর্তে আঃ মন্নান ইলিয়াস গাজীর নিকট খলাটি হস্থান্তর করে। কিন্তু শর্ত মতে ইলিয়াস গাজী এক টাকাও দেয়নি। বিধায় আঃ মন্নান ইলিয়াস গাজীগংদের বিরুদ্ধে পূর্বধলা সহকারি জজ আদালতে ৬৬-২০২১ নং অন্য প্রকার মোকাদ্দমা দায়ের করেন । আদালতের রায়কে অমান্য করে কি ভাবে চলছে, এই নিয়ে মেসার্স সততা ব্রিকস ফিল্ডস এর প্রতিষ্ঠাতা স্বত্বাধিকারী মালিক আঃ মন্নান সহকারি পরিচালক পরিবেশ অধিদপ্তর নেত্রকোনা নিকট জানতে চাইলে তিনি কোন কিছু জানান নাই এবং আঃ মন্নানের সহিত সৌজন্য মূলক আচরণ করেন নাই। এই বিষয় নিয়ে পরিবেশ অধিদপ্তর এর সহকারি পরিচালক পারভেজ আহম্মেদ এর সাথে যোগাযোগ করার জন্য বেশ কয়েকদিন অফিসে গিয়ে পাওয়া যায়নি ও মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।